Celebrities

বিকিনি পড়ে পুলের জলে স্বামীকে আদর মাধুরী দীক্ষিতের, ভাইরাল ছবি
Malabika Mondal

Comments

No comments yet

বেঙ্গল 24×7 ডিজিটাল ডেস্ক : বলিউডের ধকধক গার্ল, সত্যিই মাধুরী দীক্ষিতের নাচ মন টানেনি এমন দর্শকের সংখ্যা খুব কম আর বিশেষ করে পুরুষদের মধ্যে সেই না আছে যেন ঝড় তুলে দিতেও। তাই তো আট থেকে আশি সকলের এক আলাদা চাওয়া ছিল মাধুরী দীক্ষিতের নাচ, হম আপকে হ্যায় কৌন কিংবা দিল কিংবা সাজনা এই নাচ মাধুরী দীক্ষিতের জন্যই যেন বানানো হয়েছিল বলে মত প্রকাশ করেছিলেন অনেকেই, যদিও বর্তমানে আধুনিকতার ছাপে এবং নতুন অভিনেত্রীদের জন্য তাঁর কদর কিছুটা হলেও কমে যায়নি, তার প্রমাণ মিলল আরও একবার। তাই তো বিকিনি পড়ে পুলের জলে স্বামীকে আদর করা অবস্থায় ধরা দিলেন মাধুরি।

সেই ছবি সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করে ক্যাপশনে লিখলেন সোলমেট ফরেভার, কুড়ি বছর আগে কেরিয়ারের মধ্য লগ্নে মাধুরি শ্রীরাম নেনে কে বিয়ে করেন। এর পর লম্বা বিরতি নিয়ে স্বামীর সঙ্গে বেশ কয়েকটা বছর বিদেশে কাটিয়ে ছিলেন। যদিও তার পর আবারও বলিউডে কামব্যাক করে একের পর এক সুপার ডুপার হিট সিনেমা দর্শকদের উপহার দিয়েছেন।

তবে কুড়ি বছর পর এই পাওয়ার কাপল বেড়াতে গিয়ে যে ভাবে একে অপরকে জড়িয়ে ধরে ছবি শেয়ার করলেন তা রীতিমতো প্রশংসনীয়। এত বছর সাংসারিক জীবনে তাঁদের নিয়ে কখনওই কোনও গুঞ্জন শোনা যায়নি, একজন অভিনয় জগতে আর অন্য জন অন্য দুনিয়ার মানুষ কিন্তু তাতেও দুজনের ভালোবাসার টান কিন্তু অটুট তা বোঝাই যায়।

এবার থেকে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে নিষিদ্ধ হল মোবাইল ফোন
Malabika Mondal

Comments

No comments yet

বেঙ্গল 24×7 ডিজিটাল ডেস্ক : কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে শিক্ষার পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে এবং শিক্ষার মানোন্নয়নের জন্য এক যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিল উত্তরপ্রদেশের যোগী সরকার। সম্প্রতি রাজ্যের উচ্চশিক্ষা দফতরের তরফ থেকে এই নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে রাজ্যের সমস্ত কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে, কয়েকদিন আগে এক বিজ্ঞপ্তি জারি করে কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে কোনও ভাবেই ফোন ব্যবহার করা যাবে না বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। কলেজের পড়ুয়াদের পাশাপাশি কলেজের শিক্ষকদের ক্ষেত্রেও এই নিয়ম প্রযোজ্য বলে জানানো হয়েছে।

তবে হঠাত্ কেন এই সিদ্ধান্ত? উচ্চশিক্ষা দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে বর্তমানে শিক্ষক এবং পড়ুয়ারা সকলেই মোবাইলের জন্য বেশি সময় অপচয় করে তার প্রভাব পরে পড়াশোনার উপরে। তাই কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে যাতে পড়াশোনার পরিবেশ ফেরানো যায়, তাঁর চেষ্টায় ব্রতী হয়েছে উত্তরপ্রদেশ সরকার। তাই নতুন নিয়ম চালুর পর থেকে আর কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে গুলি ছাত্রছাত্রীরা কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় গুলিতে ঢোকার পর আর ফোন ব্যবহার করতে পারবে না।

উত্তরপ্রদেশ সরকার এর আগে সরকারি বৈঠকে মন্ত্রীদের ফোন ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছিলেন যোগী সরকার এর পর উচ্চ শিক্ষা দপ্তরে, মন্ত্রিসভার আলাপ আলোচনা সহ সরকারি বৈঠকে মোবাইল ফোন ব্যবহারের নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছিলেন যোগী আদিত্যনাথ। উত্তরপ্রদেশ উচ্চ শিক্ষা সংক্রান্ত ডিরেক্টরেট জারি করা সার্কুলারের মাধ্যমে রাজ্য সরকারের বক্তব্য কলেজে পড়াশোনা চলাকালেই যেভাবে ছাত্রছাত্রী শিক্ষক মোবাইলের পিছনে সময় নষ্ট করেছে তা আদতে ক্ষতি হচ্ছে পড়াশোনার। ছাত্রছাত্রীরা হোয়াটসঅ্যাপে মেসেজ পড়ায় ব্যস্ত থাকার ফলে পড়াশোনার দিকে মনোনিবেশ করতে পারছে না।

পুজো মণ্ডপে হট বউদির কোমর দোলানো নাচ, উষ্ণতা ছড়াল নেট দুনিয়ায়
Malabika Mondal

Comments

No comments yet

বেঙ্গল 24×7 ডিজিটাল ডেস্ক : সদ্যই বাঙালির সেরা উত্সব দুর্গাপূজার শেষ হয়েছে। কিন্তু দুর্গাপূজার শেষ হলে যেন বাঙালির মনে দুঃখের শেষ থাকে না, এক বছর প্রতীক্ষার পর অবশেষে টানা পাঁচ ছয় দিন দুর্গা পুজোয় মেতে ওঠেন সকলেই তাই তো মায়ের বিসর্জনের পর সকলেরই মন খারাপ হয়। তবে এই পাঁচ ছয় দিন পূজা মণ্ডপ থেকে শুরু করে বিভিন্ন জায়গায় মাত করে বেড়ান বাঙালিরা, কখনও অষ্টমীতে ধুনুচি নাচ আবার কখনও দশমীতে সিঁদুর খেলা, ঢাকের আওয়াজ বাজলেই যেন মনটা কেমন নেচে ওঠে। এ বার সেই ঢাকের তালে নাচ করে সামাজিক মাধ্যমে উষ্ণতা ছড়ালেন এক বৌদি। পুজো মণ্ডপে সিল্কের শাড়ি আর স্লিভলেস ব্লাউজে হট বৌদির অসাধারণ নাচ এখন সামাজিক মাধ্যমে বিদ্যুতের গতিতে ভাইরাল হচ্ছে।

যদিও কোথাকার ভিডিও তাও জানা যায়নি এবং বউদির নাম ধাম কিছুই জানা যায়নি তবে তাঁর নাচের ভঙ্গিমা নেট দুনিয়ার উত্তেজনার পারদ ছড়াচ্ছে। ভিডিওতে জিত গাঙ্গুলি র জনপ্রিয় ঢাকের তালে কোমর দোলে গানটির সঙ্গে তালে তাল মিলিয়ে বাঙালি বধূর নাচ একে বারে আনন্দ সহকারে নিচ্ছে। যদিও পুজো মিটে গিয়েছে কিন্তু পুজোর পরে এমন ভিডিও দেখে যেন পুজোর দিনগুলিতে ফিরে যাচ্ছেন অনেকে।

যদিও এই প্রথমবার নয় কয়েকদিন আগে দুর্গাপুজোর দশমীতে এক তরুণীর সাকি সাকি নাচ রীতিমতো ঝড় তুলে দিয়েছে সামাজিক মাধ্যমে। সে আর যে সে নাচ নয়,একেবারে অসুরের দাড়ি ধরেফাটাফাটি ভাবে নাচতে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। তার পরেই আবার বৌদি নাচের ভিডিও, যা মন কেড়ে নিয়েছে নীতি জনেরও। শুধুমাত্র নেটিজেনদের নয় মা দুর্গার সামনে বউদির নাচ দেখতে হাজির হয়েছিলেন অনেকেই।

সামাজিক মাধ্যমে যেমন নাচ দেখে উত্তেজনার শেষ নেই ঠিক তেমনই অনেকেই প্রকাশ্যে সেই নাচ দেখে ক্যামেরাবন্দি করতে ভোলেননি। তাই তো ভিডিওটি দেখে অনেকেই লিখেছেন কালীপুজো কিংবা জগদ্ধাত্রী পুজোয় এরকম নাচ হবে তো?

বাঘিনীকে নিয়ে লড়াই দুই বাঘের, শেষে কার দখলে এল বাঘিনী? ভাইরাল ভিডিও
Malabika Mondal

Comments

No comments yet

বেঙ্গল 24×7 ডিজিটাল ডেস্ক : বাস্তবে কোনও সুন্দরী তরুণীর প্রেমে পাগল হয়ে থাকেন অনেকেই, এই নিয়ে কখনও কখনও দুই বন্ধুর মধ্যে বচসা দেখা যায় আবার বচসার জেরে খুন পর্যন্ত হতে পারে। আর এই ধরনের খবর শুনতে শুনতে আমরা অভ্যস্ত হয়ে পড়েছি কিন্তু এই অভ্যাস যে পশুদের মধ্যে থাকে তা হয়তো আমাদের জানা ছিল না। কিন্তু এ বার সেই প্রমাণ মিলল, রণথম্ভোর জাতীয় উদ্যানে এক বাঘিনীর দখল নিয়ে দুই বাঘের মধ্যে লড়াই এর ছবি এবং ভিডিও এল প্রকাশ্যে।

যদিও তা দাঁড়িয়ে দেখার সুযোগ মিলেছে অনেক পর্যটকদের, রাজস্থানের সোয়াই মাধোপুর রণথম্ভোর জাতীয় উদ্যানের পর্যটকদের মধ্যে সেই লড়াই দেখিয়ে উচ্ছ্বাসের শেষ ছিল না। বুধবার ইন্ডিয়ান ফরেস্ট সার্ভিসের এক অফিসার ভিডিওটি শেয়ার করেছেন সামাজিক মাধ্যমে, ভিডিওটি শেয়ার হওয়া মাত্রই রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

জাতীয় উদ্যান সূত্রে জানা গিয়েছে শর্মিলী নামে এক বাঘের সন্তান ওই দুটো পূর্ণবয়স্ক বাঘ।সিংঘোষ ও রকি নামের ওই দুটি পূর্ণবয়স্ক বাঘ নূর নামে এক মহিলা বাঘের প্রতি আকৃষ্ট ছিল অনেক দিন ধরেই। তাঁরা দুজনেই কেউ ই নূর কে ছেড়ে দিতে রাজি নয় কারণ হাতে, তাই নূরের অধিকার কার এই নিয়েই দুই বাঘের মধ্যে মারামারি লেগে যায়। যদিও শেষ পর্যন্ত জয় হয়েছে সিংহঘেষের।

ভিডিওতে দেখা গেছে দুই ভাইয়ের মধ্যে একজন জঙ্গলে চুপ করে দাঁড়িয়েছিল তার পর অন্য জন সেই রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সুযোগে জঙ্গল থেকে বেরিয়ে তাঁর উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। শুধু ঝাঁপিয়ে পড়াই নয় রীতিমতো লড়াই বেধে যায় দূজণের মধ্যে। এমনকি বেশ কিছুক্ষণ হিংস্র ভাবেই দুজনে গর্জন করতে করতে মারামারি করে, যদিও শেষ অবধি জয় হয় বড় ভাইয়ের।

আজকের রাশিফল রবিবার, 20 অক্টোবর 2019
Malabika Mondal

Comments

No comments yet

বেঙ্গল 24×7 ডিজিটাল ডেস্ক : আজ রবিবার ছুটির দিন রাশি অনুযায়ী আপনার দিনটি কেমন কাটবে তা দেখে নিন-

মেষ রাশি (21শে মার্চ-20শে এপ্রিল)- মেষ রাশির জাতক জাতিকাদের আজ পরিস্থিতির শুরু করে তিনটি বেশ ভালো যাবে, স্বাস্থ্য পরিস্থিতি এক প্রকার সাংসারিক জীবনের আনন্দ ও বন্ধুত্বের পরিবেশ নিকটজনের সঙ্গে যোগাযোগ অক্ষুণ্ন থাকবে, আর্থিক পরিস্থিতি বেশ উন্নত এবং ব্যবসা বাণিজ্যে অগ্রগতি তাই চাইলেই লগ্নি করতে পারেন।

বৃষ রাশি(21শে এপ্রিল-21শে মে)- বিরুদ্ধ পরিস্থিতি জনিত কারণে বৃষ রাশির জাতক জাতিকাদের আজ বিভিন্ন সমস্যার মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। স্বাস্থ্য পরিস্থিতি এবং সাংসারিক জীবন চিন্তার কারণ হয়ে উঠবে, আর্থিক পরিস্থিতি খুব একটা ভালো নয় এবং ব্যবসা বাণিজ্য যাতায়াত তাই লগ্নি থেকে বিরত থাকুন।

মিথুন রাশি(22শে মে-21শে জুন)- পরিস্থিতি জনিত কারণে মিথুন রাশির জাতক জাতিকাদের আজকের দিনটি অত্যন্ত আলস্যের মধ্য দিয়ে কাটবে। স্বাস্থ্য পরিস্থিতি মন্দের ভালও, সাংসারিক জীবন এক প্রকার নিকটজনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা অব্যাহত থাকবে, ব্যবসা বাণিজ্য খুব একটা ভাল নয় লগ্নি থেকে বিরত থাকাই ভাল।

কর্কট রাশি(22শে জুন-22শে জুলাই)- প্রতিকূল পরিস্থিতি জনিত কারণে কর্কট রাশির জাতক জাতিকাদের আজ পরিবারের সদস্য বা কারও সঙ্গে করা হয়ে ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে, স্বাস্থ্য পরিস্থিতি উদ্বেগের কারণ হয়ে উঠবে এবং সাংসারিক জীবন একপ্রকার নিকটজনের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত রাখার চেষ্টা করুন, আর্থিক পরিস্থিতি হতাশাজনক।

সিংহ রাশি(23শে জুলাই-23শে আগষ্ট)- সিংহ রাশির জাতক জাতিকাদের ভ্রমণের যোগ রয়েছে, স্বাস্থ্য পরিস্থিতি যেমন ভাল যাবে তেমনই সাংসারিক জীবনে সুখের সমাবেশ। নিকটজনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়বে, আর্থিক পরিস্থিতির উন্নতি এবং ব্যবসা বাণিজ্যে সফল তাই লগ্নি করুন।

কন্যা রাশি(24শে আগষ্ট-23শে সেপ্টেম্বর)- পরিস্থিতির বৈচিত্র ময়দায় কন্যা রাশির জাতক জাতিকাদের আজকের দিনটি প্রেম পূর্ণ ভাবে কাটবে। স্বাস্থ্য যেমন ভাল থাকবে তেমনই সাংসারিক জীবনে সুখের সমাবেশ। নিকটজনের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে চলতে হবে, ব্যবসা বাণিজ্যে উন্নতি তাই লগ্নিতে বাধা নেই।

তুলা রাশি(24শে সেপ্টেম্বর-23শে অক্টোবর)- তুলা রাশির জাতক জাতিকাদের আজকের হিন্দি অত্যন্ত অনুকূল তাই দিনটিতে বিভিন্ন দিক থেকে লাভবান হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। স্বাস্থ্য পরিস্থিতি বেশ ভাল যাবে,সাংসারিক জীবনে সুখের সমাবেশ, নিকটজনের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত থাকবে, আর্থিক পরিস্থিতি উন্নতি এবং ব্যবসা বাণিজ্যে সাফল্য তাই লগ্নি করুন।

বৃশ্চিক রাশি(24শে অক্টোবর-22শে নভেম্বর)- বিবিধ পরিস্থিতির জন্য বৃশ্চিক রাশির জাতক জাতিকাদের আজ রোগ বিশুকে ভোগার সম্ভাবনা রয়েছ। স্বাস্থ্য পরিস্থিতি নিয়ে সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে এবং সাংসারিক জীবনের খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে বচসার সম্ভাবনা, নিকটজনের সঙ্গে ঝামেলা হতে পারে, আর্থিক পরিস্থিতি খুব একটা ভালো নয় ব্যবসা বাণিজ্যের সমস্যা তাই লগ্নি করবেন না।

ধনু রাশি(23শে নভেম্বর-21শে ডিসেম্বর)- বহুবিধ পরিস্থিতি জনিত কারণে ধনুরাশির জাতক জাতিকাদের আজ কাজের ক্ষেত্রে বিশেষ লাভের সম্ভাবনা রয়েছে। স্বাস্থ্য পরিস্থিতি এমন ভালো যাবে তেমনই সাংসারিক জীবনে আনন্দ ও সুখের সমাবেশ নিকটজনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা অব্যাহত থাকবে, বন্ধুত্বের সমন্বয় দিনটি বেশ ভালোই কাটবে।

মকর রাশি(22শে ডিসেম্বর-20শে জানুয়ারী)- মকর রাশির জাতক জাতিকাদের আজকের দিনটি অত্যন্ত চিন্তার মধ্য দিয়ে কাটবে, নিজের বা পরিবারের যে কোনও সদস্যের স্বাস্থ্য বিষয় চিন্তায় ফেলবে এবং সাংসারিক জীবনে সমস্যা, নিকটজনের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে চলার চেষ্টা করুন, ব্যবসা বাণিজ্যের সমস্যা তাই লগ্নি করলে অত্যন্ত সাবধান।

কুম্ভরাশি(21শে জানুয়ারী-18ই ফেব্রুয়ারী)- পরিস্থিতি জনিত কারণে আজ যে কোনও কাজ করার আগে তা বিবেচনা করা উচিত, স্বাস্থ্য পরিস্থিতি এক প্রকার এবং সাংসারিক জীবনে মন্দের ভালো, পরিস্থিতি নিকটজনের সঙ্গে যোগাযোগ অক্ষুণ্ণ থাকবে ব্যবসা বাণিজ্যে ব্যস্ততা তাই লগ্নি করবেন না।

মীন রাশি(19শে ফেব্রুয়ারী-20শে মার্চ)- পরিস্থিতির অনুকূল তার জন্য মিন রাশির জাতক জাতিকাদের আজকের দিনটি মন্দের ভালো, স্বাস্থ্য ও সাংসারিক জীবন এক প্রকার। নিকটজনের সঙ্গে সম্পর্ক অক্ষুণ্ন থাকবে। আর্থিক পরিস্থিতি মন্দের ভাল এবং ব্যবসা বাণিজ্যে সফলতা তাই লগ্নি করুন।

বাংলার খুদে বিজ্ঞানী আজ দেশের গর্ব, রইল তার আবিষ্কার ও সাফল্যের কিছু কথা
Malabika Mondal

Comments

No comments yet

পশ্চিমবঙ্গ 24×7 ডিজিটাল ডেস্ক: ছোটো থেকে জীবনে কোনো
নির্দিষ্ট পথে সাফল্য হওয়ার স্বপ্ন দেখি আমরা। আমাদের পরিবারের
কাছ থেকে সেই নির্দিষ্ট বিষয়ে এগিয়ে যাওয়ার জন্য সবরকমের সাহায্যও পাই। কিন্তু অনেকসময় বড় হয়ে আমরা ঠিক কি হব তা সময় বলে দেয়। আসলে আমাদের
সকলকেই ভগবান কিছুনা কিছু অনন্য ক্ষমতা দিয়ে পাঠান। আর সেই অনন্য
ক্ষমতা থেকেই আমাদের মধ্যে কিছুনা কিছু আবিষ্কারের ভাবনা তৈরি হয়। ছোটো মনে সেই আবিষ্কার হয়তো আমাদের দেশ ও পৃথিবীর কাছে অমূল্য দান হতে পারে। এমন আবিষ্কার যা হয়তো আগে কেউই ভাবতে পারে নি। আর তেমনই এক
যুগান্তকারী আবিষ্কার করলেন এক বঙ্গসন্তান। আমাদের রাজ্যেরই মেয়ে
পূর্ব বর্ধমানের দিগন্তিকা বোস।

এমন একটি চশমা
আবিষ্কার করেছে যেটি আলেকের প্রতিফলনকে কাজে লাগিয়ে সামনের জিনিস ছাড়াও পিছনের জিনিস
দেখতেও সাহায্য করে। যার ফলে রেল চালক থেকে শুরু করে সুন্দরবনের
মাছ, কাঠ ও মধু সংগ্রহকারীদের বিশেষ সুবিধা হবে। শুধু তাই
নয়,মেমারির ভি এম ইন্সটিটিউশন ইউনিট 2 এর বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী দিগন্তিকা আরও
বেশ কয়েকটি জিনিস আবিষ্কার করে ফেলেছে মাত্র কয়েক বছরেই।

দিগন্তিকার অন্য
একটি আবিষ্কারহল এমনই একটি জিনিস যা যেকোনো হ্যান্ড ড্রিল মেশিনের সঙ্গে যুক্ত
করলে দেওয়ালে গর্ত করলেও ধুলো বাতাসে মিশবে না। ফলে যাঁদের এই
ধুলোতে হাঁচি কাশির সমস্যা থাকে তাঁরা রেহাই পাবেন। র জন্য অতিরিক্ত কোন বিদুৎ খরচ হবে না । মাত্র
২৫০ টাকা খরচ করে এটি তৈরি করা সম্ভব হয়েছে।  

দিগন্তিকার তৃতীয়
আবিষ্কার হল, বাইক আরোহীদের দেখতে এবং গাড়ি চালাতে বিশেষ সুবিধা করার জন্য আলোকের
প্রতিফলনকে কাজে লাগিয়ে তৈরি হেলমেট। যেটি বাইক চালকদের অন্ধকারে দেখতে যেমন সুবিধা
করবে তেমনি নিরাপদ ভাবে গাড়ি চালাতেও সাহায্য করবে।

তাঁর চতুর্থ
আবিষ্কার হল, স্মার্ট সার্ভিক্যাল কলার। যেটি স্পন্ডেলাইটিস
রোগীদের জন্য বিশেষ ভাবে সহায়ক। কলারের বিকল্প হিসেবে যেটি বিশেষ ভাবে কাজে
লাগবে। আসলে যাংদের অতিরিক্ত ঘাম হয় তাঁদের ক্ষেত্রে
এই সার্ভিক্যাল কালার খুবই উপাদেয়। বারনৌলি সূত্র ও এয়ার ক্লো ব্যবহার করে বাইরের
ও কলারের ভিতরের তাপমাত্রা নিযন্ত্রণের ব্যবস্থা করে দেন তিনি। তাপমাত্রা ও আর্দ্রতা কে নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম। রেগুলেটরের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণও করা যাবে। যেমন
ভাবা, তেমন কাজ।

আর নিজের সাফল্য
ও দেশকে নতুন উপহার দেওয়ার জন্য তাঁর ঝুলিতে উঠেছে একাধিক পুরষ্কার। সেগুলি হল-

  1.  ডঃ এ পি জে আবদুল কালাম ইগনাইট এওয়ার্ড  ২০১৭ (ভারত সরকার ) যা ভারতের রাষ্ট্রপতি তার
    হাতে তুলে দেন। (Project.. DUST COLLECTING ATTACHMENT FOR DRILL MACHINE)
  2. ডঃ এ পি জে আবদুল
    কালাম ইগনাইট ২০১৮  Project. ..The
    Smart cervical Collar
  3.    পশ্চিম বঙ্গ রাজ্য ছাত্র যুব বিজ্ঞান মেলা  (রাজ্যের প্রথম ) যা পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষে
    মন্ত্রী লক্ষ্মীরতন শুক্লা তার হাতে তুলে দেন।
  4.   স্টার্ট আপ ইন্ডিয়া এওয়ার্ড ২০১৮ ( আই আই টি
    ভুবনেশ্বর ) ।
  5.          ২৫তম চিল্ড্রেন্স সাইন্স কংগ্রেস ( জাতীয় ,
    রাজ্য , জেলা স্তরে বিশেষ স্বীকৃতি পায় ) আয়োজক ভারত
    সরকার ২০১৭।
  6.        Certificate of Appreciation Mission to
    Touch The Sun ‘PARKER SOLAR PROBE’ Project by National Aeronautics and Space
    Administration (NASA) USA.
  7. ফেস্টিভ্যাল অফ
    ইনভেশন ১৯-২৩ মার্চ ২০১৮ এ রাষ্ট্রপতি ভবনের আমন্ত্রণে যোগদান করে।  
  8. পঞ্চরত্ন ২০১৭
    মেমারি মিউনিসিপ্যালিটি ।
  9.  সেরা বাঙালি ২০১৮ পূর্ব বর্ধমান ( আনন্দ বার্তা
    চ্যানেল)।

রানু মণ্ডলের পর বাংলার অন্ধ ছেলের গান শুনে কাঁদলেন রিয়েলিটি শো এর বিচারকরা
Malabika Mondal

Comments

No comments yet

বেঙ্গল 24×7 ডিজিটাল ডেস্ক :জন্ম থেকেই দুই চোখে দেখতে পান না তিনি, অথচ গানের গলায় যেন মা সরস্বতী ভর করে আছে। তাই নিজেকে শেষ করে দিতে পুড়ে মারা যেতে চেয়েছিলেন, মুখ অগ্নিদগ্ধ, ঘাড়ের কাছ থেকে পিঠের দিকটাও খানিকটা পড়েছে। কিন্তু সৌভাগ্যের ঝেড়ে তিনি প্রাণে বেঁচে আছেন, আর আজ সেই প্রতিভাবান গুণী শিল্পী মুম্বাইয়ের রিয়েলিটি শোয়ের মঞ্চে গান গেয়ে বিচারকদের কাঁদিয়ে দিলেন, এর আগে রানু মণ্ডলের গান শুনে এবং তাঁর জীবন কাহিনি শুনে কেঁদে ছিলেন এক রিয়েলিটি শোয়ের বিচারকরা।

বাঁকুড়ার এই প্রতিভাবান শিল্পীর নাম অবিনাশ বাউড়ি, জন্ম থেকেই অন্ধ কিন্তু ছোট থেকেই গানের প্রতি তাঁর একটা আলাদা টান ছিল। গান শোনা থেকে গান গাওয়া দুটোই তাঁর অত্যন্ত পছন্দের জিনিস ছিল,তাই সেই পছন্দ ভালোবাসা এবং অদম্য নেশা আজ তাকে পৌঁছে দিয়েছে জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো ইন্ডিয়ান আইডল এ। সম্প্রতি ওই রিয়েলিটি শো এর নতুন পর্ব শুরু হয়েছে, তাতে সিলেকশন পর্ব চলছে আর সেই সিলেকশন পর্বে অডিশন মঞ্চে গান গেয়ে বিচারকদের এবং দর্শকদের অবাক করে দিলেন অবিনাশ বাউড়ি।

তাঁর গান শুনে আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়লেন বিচারক অনু মালিক নেহা কক্কর এবং বিশাল দাদলানি। তবে শুধুমাত্র তাঁর গান শুনেই নয় কী ভাবে মৃত্যুর মুখ থেকে অবিনাশ ফিরে এসে স্বাভাবিক জীবন যাপন করছে সেই কাহিনি শুনে ও কেঁদে ফেললেন তিন বিচারক। দু চোখে দুনিয়া দেখা তাঁর অনেক স্বপ্ন ছিল আর সেই কারণেই দীর্ঘদিন ধরে হতাশায় ভুগছিলেন অবিনাশ। তাই একদিন বাবা মা না থাকার সময় ঘরে থাকা কেরোসিন ঢেলে আগুন জ্বালিয়ে দেন নিজের মুখে, যদিও প্রতিবেশীদের তত্পরতায় এ যাত্রায় রক্ষা পেয়েছে সে।

সেই গল্পই রিয়েলিটি শোয়ের মঞ্চে শোনালেন অবিনাশের বাবা তপন বাউড়ি। তাঁর গান শুনে তাঁকে জড়িয়ে ধরেন বিচারক অনু মালিক। কেঁদে ফেলেন নেহা কাক্কার। সিলেকশন পর্বে অবিনাশের গান শুনে মুগ্ধ সকলেই।

বারো বছর ধরে 35 কেজি কয়েন জমালেন যুবক, সেই টাকা দিয়ে মাকে ফ্রিজ উপহারও দিলেন
Malabika Mondal

Comments

No comments yet

বেঙ্গল 24×7 ডিজিটাল ডেস্ক : অনেক কষ্ট বা দারিদ্রতা কিংবা সংগ্রামের মধ্য দিয়ে মায়েরা তাঁদের সন্তানকে বড় করে তোলেন। তাই মায়ের ঋণ কখনো শোধ করা যায় না কিন্তু মাকে যদি কিছু উপহার দেওয়া যায় তা বোধহয় সন্তানদের কাছে অনেকটাই আনন্দের। তেমনটাই যে সকলে চান তার প্রমাণ মিলল আবারও, তাই তো মাকে বারো বছর ধরে নিজের জমানো টাকা দিয়ে রেফ্রিজারেটর উপহার দিলেন 17 বছরের এক কিশোর। জানা গিয়েছে 12 বছর ধরে রাম সিং নামের ওই কিশোর এক দুই পাঁচ ও দশ টাকার কয়েন মিলিয়ে পঁয়ত্রিশ কেজি কয়েন জমিয়েছেন।

2007 সাল থেকে শুরু হয়েছিল তাঁর টাকা জমানো, কিন্তু আজ জমানো টাকা গুনতেই নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা হয়ে যাওয়ায় সোজা সেই কয়েন নিয়েই রেফ্রিজারেটারের দোকানে গিয়ে হাজির হলেন রাম সিংহ। 13,500 টাকা নিয়ে সে রেফ্রিজারেটারের দোকানেই গিয়েছেন বলে খবর। 2007 সালে মাত্র পাঁচ বছর বয়সে রাম সিংহ তাঁর মায়ের জন্মদিনে কিছু উপহার দেওয়ার চেষ্টা করেছিল, কিন্তু তা সম্ভব হয়নি বলে তখন থেকেই অল্প অল্প করে টাকা জমাতে শুরু করেছিল সে। আর এ ভাবেই বারো বছর ধরে অল্প অল্প করে জমানো টাকা আজ হয়ে যায় সাড়ে তেরো হাজার টাকা এবং বনে গিয়ে দাঁড়ায় পঁয়ত্রিশ কেজি।

এর পর আজ একটি বিজ্ঞাপনে রেফ্রিজারেটারের সংস্থা ছাড় দেওয়ার খবর চোখে পড়তেই মায়ের জন্মদিন উপলক্ষে সেই টাকা নিয়ে শোরুমে হাজির হয় রাম সিংহ। যদিও প্রথমে এত খুচরো টাকা নিয়ে দোকানে আসার কারণ বুঝতে পারেননি শোরুম মালিক, তার পর পুরো ঘটনাটি সে বুঝিয়ে বলে। তবে পুরো টাকাটাই যে এক দুই পাঁচ দশ টাকার কয়েনের মাধ্যমে রাম সিংহ মেটাবে তা কিন্তু ঘুণাক্ষরেও বুঝতে পারেননি শোরুম মালিক। কিন্তু ফ্রিজের দাম শুনে কিছুটা হলেও চিন্তিত হয়ে পড়েছিল নাম সিং, কারণ যে ফ্রিজটি তাঁর পছন্দ হয়েছিল তার দাম 15000 টাকা কিন্তু তাঁর কাছে রয়েছে মাত্র সাড়ে তেরো হাজার টাকা, তবে রাম সিংহের কাছ থেকে পুরো ঘটনা শুনে অভিভূত হয়ে সেই ফ্রিজটি সাড়ে তেরো হাজার টাকাতেই রাম সিংহের হাতে তুলে দেন শোরুম মালিক।

মায়ের জন্য ফ্রিজ কিনতে পেরে আপ্লুত রাম সিংহ জানায় অনেক দিন ধরেই তাঁর মা ফ্রিজ কেনার কথা বলেছিল, তাই আজ তাঁর মাকে ফ্রিজ উপহার দিতে পেরে সে যথেষ্টই খুশি। তবে শুধুমাত্র ফ্রিজ কিনে দেওয়াই নয়, মায়ের প্রয়োজন মতো সে তাঁর জমানো টাকা থেকে মাকে দিয়ে সাহায্য করতেন বলে জানা গিয়েছে। ছেলের কাছ থেকে উপহার পেয়ে যথেষ্টই খুশি রাম সিংহের মা ও। সত্যি এমন ছেলেকে কুর্নিশ না জানিয়ে কি থাকা যায়?

নিজের সন্তানের মতো আদর করলেন এই শিশুকে, জানুন প্রিয়াঙ্কার কোলে থাকা শিশুটির পরিচয়
Malabika Mondal

Comments

No comments yet

বেঙ্গল 24×7 ডিজিটাল ডেস্ক : আর মাত্র দু মাস পরে বিবাহবার্ষিকী, তবে প্রথম বিবাহবার্ষিকীর আগে বেশ ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন পিগি চপস। বিয়ের পর আমেরিকা ও মুম্বইতে যাতায়াত করছিলেন তবে হাতে কাজ না থাকার জন্য বেশ কয়েক মাস আমেরিকাতেই কাটিয়েছিলেন। কিন্তু বর্তমানে দ্য স্কাই ইজ পিংক ছবির প্রোমোশনের জন্য ভারতেই রয়েছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, ছবিটির প্রোমোশনের জন্য সহ অভিনেতা ফারহান আখতারের সঙ্গে দেশের বিভিন্ন শহরে ঘুরতে বেড়াতে দেখা যাচ্ছে প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে।

সামাজিক মাধ্যমে সেই দেশের শহর ভ্রমণের ছবিও ধরা পড়েছে কিন্তু এরই মধ্যে ভাইরাল হলেও প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার একটি অনবদ্য ছবি। যেখানে একটি ছোট্ট শিশুকে কোলে তুলে আদর করতে দেখা গেছে তাঁকে, শুধু আদর করাই নয় মাতৃস্নেহে ভালোবাসতেও দেখা গিয়েছে। তবে শুধুমাত্র ছবি শেয়ার করাই নয় প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও শেয়ার হয়েছে যেখানে দেখা গিয়েছে প্রিয়াঙ্কা যখন পুলে নামছেন তখনও তাঁর করে রয়েছে সেই ছোট্ট শিশু আর তাঁকে অত্যন্ত সযত্নে যেন আঁকড়ে রেখেছেন প্রিয়াঙ্কা।


কখনও তাঁর গাল ধরে হাসছে আবার আদর করছেন আবার মিষ্টি মিষ্টি কথা বলতে দেখা গিয়েছে। পিগি চপসের ওই ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই বিদ্যুতের গতিতে ভিউয়ার্স হয়েছে। যদিও যে ছবি ও ভিডিও শেয়ার করেছেন দুটি বাচ্চা সম্পূর্ণ আলাদা, কিন্তু শিশু দুটিকে প্রিয়াঙ্কার মতো যে দর্শকদের পছন্দ হয়েছে তা বলা যাচ্ছে। ইনস্টাগ্রামে প্রিয়াঙ্কার ভিডিওয় প্রায় দু লক্ষের বেশি লাইক পড়েছে ইতিমধ্যেই। উল্লেখ্য, বিয়ের পর কিছুদিন বিরতি নিয়ে স্কাই ইজ পিংক ছবি দিয়ে আবারও বলিউডে পা রেখেছেন প্রিয়াঙ্কা , ফারহান আখতার ছাড়াও এই ছবিতে দেখা যাবে জায়রা ওয়াসিম এবং রোহিত শরফ কে।

অ্যাকাউন্টে যত পরিমাণে টাকা থাকুক না কেন ভরাডুবি হলে ব্যাংক দেবে মাত্র 1 লক্ষ টাকা
Malabika Mondal

Comments

No comments yet

বেঙ্গল 24×7 ডিজিটাল ডেস্ক : পাঞ্জাব মহারাষ্ট্র ন্যাশনাল ব্যাংকের পর যে ভাবে দেশ জুড়ে বিভিন্ন ব্যাংকে আর্থিক জালিয়াতি চলছে তাতে গ্রাহকরা ব্যাংকে টাকা রাখতে ভরসা পাচ্ছেন না। সম্প্রতি একই ঘটনা ঘটছে বিএমসির ক্ষেত্রে। তাই যথেষ্টই চিন্তার ভাঁজ গ্রাহকদের কপালে। তবে, রিজার্ভ ব্যাঙ্কের একটি সার্কুলার আরও চিন্তা বাড়িয়েছে গ্রাহকদের। জানানো হয়েছে গ্রাহকদের অ্যাকাউন্টে যত টাকাই থাক না কেন ভরাডুবি হলে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ মাত্র এক লক্ষ টাকার দায়ভার নেবে, অর্থাত গ্রাহকদের অ্যাকাউন্টে যদি কয়েক লক্ষ টাকা থাকে সে ক্ষেত্রে ব্যাংকের ভরাডুবির জন্য মাত্র 1 লক্ষ টাকা গ্রাহকরা ফেরত পাবেন। এমনকি এই নির্দেশিকা প্রতিটি গ্রাহকদের পাসবুকে স্ট্যাম্প মেরে লিখে দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

তাই এক দিকে যেমন ব্যাংকে আর্থিক সঞ্চয় নিয়ে চিন্তা রয়েছে ঠিক তেমনই সঞ্চয় করা টাকা কোথায় জমা রাখবেন? তা নিয়েও চিন্তিত সকলেই। ব্যাঙ্ক সূত্রের খবর আইসিসির নিয়মে ব্যাংক যদি লিকুইডেশন হয়ে যায় সে ক্ষেত্রে গ্রাহকরা টাকা পাবেন, গ্রাহকের অ্যাকাউন্টে যত টাকাই থাকুক না কেন আবেদন করার মাধ্যমে 2 মাসের মধ্যে এক লক্ষ টাকা অবধি ক্ষতিপূরণ পেতে পারবেন। বেশি টাকা ফেরত পাওয়ার সম্ভাবনা থাকলেও থাকতে পারে কিন্তু তা মোটেই নিশ্চিত নয়। আরবিআইয়ের নির্দেশ মেনেই এই পদক্ষেপ নিয়েছে ব্যাঙ্কগুলি।

যদিও এই সুপারিশ চালু করা হয়েছিল দুই বছর আগে, রিজার্ভ ব্যাঙ্কের অধীনস্থ বিমা সংস্থার তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল-

1. গ্রাহকরা আবেদন করার দু মাস পরে ক্ষতিপূরণ পাবেন, লিকুইডেটর মাধ্যমে বাকি টাকা পাওয়ার প্রক্রিয়া চলবে।

2. ব্যাঙ্কের ঝাঁপ যদি বন্ধ হয়ে যায় সেক্ষেত্রে লিকুইডেটর নিয়োগ করে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের তরফ থেকে টাকা ফেরত দেওয়া হবে।

কিন্তু এখানেই প্রশ্ন উঠছে, 2017 সালে বিমা সংস্থার তরফে জানিয়ে দেওয়া হলেও তার দু বছর পরে প্রকাশ্যে আসছে কেন? এমনিতেই পিএমসি ব্যাংক কেলেঙ্কারিতে লক্ষ লক্ষ আমানতকারী সমস্যার মুখে পড়েছেন। অনেকেই টাকা তুলতে পারছেন না। একেই দেশে আর্থিক মন্দা তার ওপরে ব্যাংক জালিয়াতি দুই মিলিয়ে আপাতত উদ্বেগের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে দেশের নাগরিক। তবে অন্য দিকে ব্যাংকের রক্ষাকবচ নিয়েও কিন্তু প্রশ্ন উঠছে।

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: