আপনার কি ফাটা, ছেঁড়া ২০০ বা ২০০০ টাকার নোট রয়েছে? জেনে নিন বদলানোর নিয়ম

ডিমনিটাইজেশন বা বিমুদ্রাকরণ,চলতি কথায় নোট বাতিলের পর পেরিয়ে গেছে অনেকটা সময়। বাজারে এসেছে নতুন নোট। এসেছে ১০,৫০,২০০,৫০০ এবং ২০০০ টাকার নোট। এছাড়াও বাজারে চালু রয়েছে পুরনো ১০,২০,৫০, ১০০ টাকার নোটও। টাকা মাত্রই সকলে খুব যত্নে রাখেন। কারণ টাকা ছিঁড়ে গেলে বেজায় সমস্যায় পড়তে হয়। বিশেষ করে নতুন ২০০ কিংবা ২০০০ টাকার নোট। এই নোটগুলিতেতো আবার সামান্য কালির দাগ থাকলেই কেউ নিতে চায় না। একবার কোনও নোটের এই অবস্থা হলে সকলের মনেই নানা প্রশ্ন ঘুরপাক খেতে থাকে। কীভাবে চালানো যাবে ফাটা ছেঁড়া নোট। নোট বদলাতে গিয়ে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয়। কারণ, এই সব নোট বদলাতে ব্যাঙ্কেও রাজি হয় না। কিন্তু একটি উপায় আছে,যে উপায় বলে দিয়েছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া।

Image Source – https://www.indiatoday.in

ছেঁড়া ফাটা কিংবা নোংরা নোট যদি আপনার কাছে থাকে তাহলে তা আপনি যেকোনও ব্যাঙ্কে গিয়ে নির্ধিয়ায় পরিবর্তন করতে পারেন। আর এই পরিবর্তন করার সময় আপনাকে কোনও হেনস্থার শিকার হতে হবে না। এইরকম অনেকগুলো নিয়মাবলী ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্কের তরফ থেকে দেশের প্রতিটি সরকারি ও বেসরকারি ব্যাঙ্কের প্রতি পাঠানো হয়েছে।এই নির্দেশিকায় কতটা ক্ষতিগ্রস্ত নোট বদলানো যাবে এবং নোট বদলে কত টাকা ফেরত পাওয়া যাবে, তা স্পষ্ট করে বলা আছে। আর এই নির্দেশ অনুযায়ী, এখন ২০০০ বা ২০০ টাকার ক্ষতিগ্রস্ত নোট বদলানো যাবে ব্যাঙ্ক থেকেই। কী ভাবে?

Image Source – https://www.livemint.com

নোট বদলের ক্ষেত্রে কী গাইড লাইন দিয়েছে আরবিআই

  • একটি ২০০০ টাকার নোটের মাপ ১০৯.৫৬ বর্গ সেন্টিমিটার। ২০০০ টাকার নোটের বদলে আপনি যদি ব্যাঙ্ক থেকে ২০০০ টাকাই ফেরত পেতে চান তাহলে খেয়াল রাখতে হবে নোটটির ৮৮ বর্গ সেন্টিমিটার যেন হয়।
  • যদি ২০০০ টাকার নোটের ৪৪ বর্গ সেন্টিমিটার অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয় সেক্ষেত্রে আপনি ফেরত পাবেন ১০০০ টাকা।
  • ২০০ টাকার নোটের মাপ ৯৬.৩৬ বর্গ সেন্টিমিটার। যদি ২০০ টাকাই ফেরত পেতে চান তাহলে নোটের ৭৮ বর্গ সেন্টিমিটার অংশ ভাল থাকতে হবে।
  • ২০০ টাকার নোটের ৩৯ বর্গ সেন্টিমিটার অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হলে ব্যাঙ্ক থেকে ২০০ টাকার নোটের বিনিময়ে ১০০ টাকা পাবেন গ্রাহকরা।
  • আর ২০০ টাকা বা ২০০০ টাকার নোটের মাঝখান থেকে পুরোপুরি যদি ছেঁড়া হয় তাহলে কোনও ক্ষতিপূরণই মিলবে না।
Image Source – https://trak.in/tags/business

মনে রাখবেন- যদি দেখা যায় আপনি ইচ্ছাকৃতভাবে অনেক বেশি পরিমানে ছেঁড়া ফাটা নোংরা নোট পরিবর্তন করার জন্য ব্যাঙ্কে নিয়ে গেছেন তাহলে নোট করে নেওয়া হবে আপনার নাম, নোটের নম্বর ও আপনার আনা মোট টাকার মূল্য। তা জানানো হবে ডেপুটি বা জেনারেল ম্যানেজারের কাছে। এমনকী আপনার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগও জানাতে পারে ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: